শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার পাস মার্ক ও চূড়ান্ত প্রস্তুতি ২০২৩

শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার পাশ মার্ক ৪০ পাওয়ার কৌশল। সহজে আপনি ৪০ মার্ক পেতে চাইলে আপনাকে কৌশলি হতে হবে। আপনাকে আগে বিগত সালের প্রশ্ন বিশ্লেষণ করতে হবে। প্রথমে আপনার মাথায় রাখতে আপনার পাশ মার্ক ৪০ এবং কোন বিষয়ের জন্য আলাদা কোন পাশ মার্ক নাই । আপনি মোট ৪০ মার্ক পাওয়ার পরে পাশ হতে পারবেন । আপনি অনেক অধ্যায় গুরুত্ব না দিয়েও সহজে পাশ মার্ক তুলতে পারবেন। আজকে আমরা চেষ্টা করবো সহজ অধ্যায় গুলো থেকে ফুল মার্ক তুলে সহজে কি ভাবে পাশ মার্ক তোলা যায়।

আরও পড়ুন:

 

শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার পাস মার্ক ও চূড়ান্ত প্রস্তুতি ২০২৩

 

315862191-1139507526670158-8345366243728058649-n

 

বাংলা রিভিশনের কৌশল

বাংলায় মোট মার্ক আছে ২৫। মোট অধ্যায়ের সংখ্যা ১২টা । এই অধ্যায়ের মধ্যে কঠিন এবং সহজ দুই অধ্যায় আছে। আপনাকে টার্গেট নিতে হবে ২৫ এর মধ্যে কম হলেও বাংলা থেকে আপনি ১৮-২০ মার্ক তুলতে পারেন । কারণ বাংলা বিষয়ে আপনি সহজে এই মার্ক তুলতে পারবেন।

যেমনঃ

  • ভাষারীতিঃ– এই অধ্যায় থেকে আপনি সহজে ৩ মার্কের মধ্যে ২ মার্ক তুলতে পারবেন। এই অধ্যায়ের ১ মার্ক সাধু-চলিত ভাষা থেকে আসবে। বাংলা ভাষার উৎপত্তি ও ধ্বনি ও বর্ণ থেকে ১ মার্ক কমন পাবেন।

 

  • বাংলা ভাষার শব্দাবলিঃ– এই অধ্যায় থেকে গড় ১ মার্ক কমন পাবেন তবে আপনি শেষ সময়ে অধ্যায়ের সব গুলো শব্দ পড়তে পারবেন না এই জন্য আপনার উচিৎ হবে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য গুলো পড়া ।

 

  • সন্ধিঃ– এই অধ্যায় অনেক বড় এবং নিয়মের মধ্যে চলে তবে কমন মার্ক -১ তাই কোন ভাবেই ছাড় দেওয়া যাবে না। ৮০% চাকরির পরীক্ষায় ঘুরে-ফিরে এই সন্ধি বিচ্ছেদ দেওয়া হয়।

 

  • কারক ও সমাসঃ দুই অধ্যায় থেকে কমন মার্ক ৫। কিন্তু ৮০% চাকরির পরীক্ষার্থীর কাছে অধ্যায়টা অধিক কঠিন হয়ে থাকে। তবে এই অধ্যায় থেকে ৮০% প্রশ্ন প্রতিটা চাকরির পরীক্ষায় রিপিট হয়ে থাকে। যেমন সর্বশেষ অনুষ্ঠিত প্রথম শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় কমন ছিল সব গুলো রিপিট প্রশ্ন। এই অধ্যায়ে সবচেয়ে বেশি কমন আসে

 

  • সামার্থক শব্দ– শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় এই অধ্যায়ের ২ মার্কের মধ্যে ১ মার্ক কমন পেতে পারেন খুব সহজেই । এই অধ্যায় একজন চাকরির পরীক্ষার্থীর মনে রাখা কঠিন তবে আপনাকে গুরুত্বপূর্ণ কিছু তথ্য অবশ্যই মনে রাখতে হবে। যেমনঃ পৃথিবী,সূর্য,অগ্নি, অন্ধকার, অরণ্য/বন, অশ্রু, আকাশ, উর্মি, কূল,চন্দ্র,জল,নদী,রাত্রি,কপাল ।

 

  • প্রত্যয়ঃ এই অধ্যায় থেকে ১ মার্ক কমন থাকে কিন্তু ৯৯% চাকরির পরীক্ষার্থীর জন্য অধ্যায় মানে জমের বাড়ি । ২০২১-২০২২ সালের প্রায় পরীক্ষায় যে প্রশ্ন গুলো হয়েছে তা বার বার এই অংশ থেকেই রিপিট হয়েছে। এর বাহিরে খুব কম প্রশ্ন লক্ষ্য করা যায়।

 

  • বানান ও বাক্যশুদ্ধিঃ এই অধ্যায় থেকে গড় কমন থাকে ৩ মার্ক । এই অধ্যায়ের কোন সিমা নাই তবে বেশি ভাগ চাকরির পরীক্ষায় সম্ভাব্য কিছু তথ্য দেওয়া আছে পরীক্ষায় আসার মত ।

 

  • এক কথায় প্রকাশঃ এইটা অধিক তথ্য ১ মার্ক কমন পাওয়া সহজ তবে এর জন্য আপনাকে অধিক তথ্য পড়তে হবে।

 

  • বিপরীতার্থক শব্দঃ অধ্যায়ের তথ্যের শেষ নাই তবে পরীক্ষায় আসার মত ২-২.৫ পৃষ্ঠা পড়তে পারলেই আপনি এই ১ মার্ক কমন পাবেন ইনশাল্লাহ ।

 

  • বিরামচিহ্নঃ এই অধ্যায় থেকে শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষায় কমন মার্ক গড় ২। এই অধ্যায়ের তথ্য যে অধিক তাও না। আপনি শুধু মাত্র অর্ধেক পৃষ্ঠা পড়েই এই অধ্যায় থেকে ২ মার্ক কমন পেতে পারেন।

 

  • বাগধারাঃ- এই অধ্যায় অধিক গুরুত্বপূর্ণ আপনি গড় ৩ মার্ক কমন পাবেন। আপনার ইচ্ছে মত যে কোন বই থেকে পড়তে পারেন।

 

সাধারণ জ্ঞান রিভিশনের কৌশল

সাধারণ জ্ঞান অংশে ২৫ মার্ক তবে আপনি চাইলে কৌশলে এই সময়ের মধ্যে ভাল মার্ক তুলতে পারবেন । এর জন্য প্রথমে আপনাকে বাছাই করে নিতে হবে কোন অংশ থেকে কত মার্ক কমন আসে এবং আপনি কি ভাবে সহজে সেই মার্ক তুলতে পারবেন।

 

  • ভৌগোলিক অবস্থা ও ভূপ্রকৃতিঃ এই অধ্যায় থেকে ১ মার্ক কমন পাবেন ।
  • পাকিস্তানি আমল থেকে মুক্তিযুদ্ধঃ এখান থেকে ৩-৪ মার্ক কমন পাওয়া সম্ভব। আপনি শেষ সময়ে এই অংশ পড়লেই আপনি ২৫ মার্কের মধ্যে ৪ মার্ক কমন পাবেন। যদিও এইটা বাংলাদেশের ইতিহাস এই জন্য আপনার জন্য অধিক কঠিন ও হবে না।
  • সংস্থা ও সংগঠনঃ এই অধ্যায় থেকে সর্বনিম্ন আপনি ৩ মার্ক কমন পাবেন। শেষ সময়ের রিভিশনের সময় ভুলেও এই অধ্যায় বাদ দেওয়া যাবে না। এই অধ্যায়ের গুরুত্বপূর্ণ অংশ জাতিসংঘ , সার্ক, বিমটেস, আর বিভিন্ন সংস্থার সদর দপ্তর।
  • স্বাস্থ্য চিকিৎসাঃ এই অধ্যায় থেকে আপনি সহজে ২ মার্ক তুলতে পারবেন। কারণ এই অধ্যায় থেকে বেশি ভাগ প্রশ্ন একই ধরণের হয়ে থাকে।

আপনি মাত্র ৪ অধ্যায় থেকেই প্রায় ২৫ মার্কের মধ্যে সহজে ১০+ মার্ক তুলতে পারবেন।

 

গণিত রিভিশনের কৌশল

চাকরির পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষার আগে কৌশলী হতে হয়, তা নাহলে পরীক্ষায় ভাল করা সম্ভব নয়। গণিতের ক্ষেত্রে শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার বিগত সালের প্রশ্ন বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় পরীক্ষার জন্য ১৪ টা অধ্যায় পড়তে হবে। প্রতিটা অধ্যায়ে প্রশ্ন আছে ১০০-২০০টা ।

এত অঙ্ক শেষ করতে চাইলে অনেক সময় প্রয়োজন। আর গণিতে ২৫ মার্ক আছে, তাই আপনি চাইলেও বাদ দিতে পারবেন না। তবে আপনি আগে থেকেই কৌশলী হলে এই অল্প সময়ে সকল অঙ্ক রিভিশন দিতে পারবেন।

 

অল্প সময়ে গণিত শেষ করতে চাইলে ১০০-২০০টা অঙ্ক না করে, একই নিয়মের ১টা করে অঙ্ক করলে আপনি শেষ সময়ে ভাল প্রস্তুতি নিতে পারবেন। প্রতিটা নিয়মের ১০টা অঙ্ক করলে আপনার চর্চা ভাল হবে, তবে শেষ সময়ে রিভিশনের জন্য একটা করে অঙ্ক করাই উত্তম।

 

এতে আপনি দ্রুত সময়ের মধ্যে ১২-১৩ অধ্যায়ের অঙ্ক শেষ করতে পারবেন এবং ভাল প্রস্তুতি নিতে পারবেন।আরো কৌশলের জন্য আপনি যে অধ্যায়গুলো থেকে ২-৩ মার্ক কমন আসে সেই অধ্যায়গুলো ভালভাবে দেখতে পারেন। এতে আপনি দ্রুত সময়ের মধ্যে অঙ্ক শেষ করে বেশি কমন পাবেন। জ্যামিতি অংশ শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। তাই কোন ভাবেই জ্যামিতি অংশ বাদ দেওয়া যাবে না।

 

About Nazmul Hasan

Hi! I'm Nazmul Hasan. From Koyra, Khulna. I'm Student of Under National University of Govt. B. L. College, Khulna, Department of Political Science....

Check Also

৬৮ হাজার ৪র্থ গণবিজ্ঞপ্তি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২২

NTRCA ৫ম গণবিজ্ঞপ্তি ২০২৪ – ৫ম গণবিজ্ঞপ্তি শূন্য পদের তালিকা

৯৬,৭৩৬ টি শূন্য পদের বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (ntrca) এর ৫ম গণবিজ্ঞপ্তি প্রকাশ। …