জব সল্যুশন মুখস্ত করবেন যেভাবেঃ

জব সল্যুশন শেষ করবেন যেভাবেঃ

চাকরির পরীক্ষার প্রস্তুতিতে সবচেয়ে বড় বই জব সল্যুশন।প্রাথমিক ভাবে চাকরির প্রস্তুতির শুরুতে এই বইটিই আপনাকে যেকোন প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় যোজন যোজন দূরত্ব এগিয়ে দেবে।তবে এই বই পড়তে গিয়ে একটাই সমস্যা শেষ করা দুরুহ বা ধৈর্য থাকেনা।এর অন্যতম কারণ হলো এখানে সব প্রশ্নের সমাহার এবং কোন নির্দিষ্ট টপিক বা অধ্যায়ভিত্তিক প্রশ্ন নেই।বরং একসেট প্রশ্নে বাংলা,ইংরেজি,গণ

িত,বিজ্ঞান,সাধারণ জ্ঞান এর সব ক্যাটাগরির প্রশ্ন থাকে।যার ফলে কেউ যদি একটা প্রশ্ন সলভ করতে যায় ২-৩ ঘন্টা সময় লাগে।কয়েকদিন ৪-৫ টা পড়ার পর ভাল লাগেনা ফলে মনে হয় ধূর এর চেয়ে সাবজেক্ট ওয়াইজ গাইড বই পড়ি।কিন্তু আপনি ইচ্ছে করলে একটু টেকনিক করলে সহজেই ২-৩ মাসে অন্যান্য গাইড বই পড়ার সাথে জব সল্যুশনও শেষ করতে পারবেন।এর জন্য আপনাকে যা করতে হবে তা হলো শক্ত মন নিয়ে একটা জেদ,এই বই আমি ফার্স্ট টু লাস্ট দেখে ছাড়ব।এবার..

১)তিনটি খাতা করুন,বাংলা +ইংরেজি,বাংলাদেশ+আন্তর্জাতিক, গণিত+বিজ্ঞান।

২)যেকোন একটা বিষয় নিয়ে শুরু করবেন এবং টানা ১০-১২ দিন ওইটাই পড়ুন।যেমন বাংলা শুরু করলেন বিসিএস৩৭ এর প্রশ্ন দিয়ে এরপর পরের বিসিএস,এভাবে ৩৭-১০ বিসিএস প্রথমে শুধু বাংলার প্রশ্ন পড়ুন।একলাইনে প্রশ্ন পড়ে খাতায় লিখুন,অপশনগুলো বাদ দিয়ে শুধু সম্পূর্ণ উত্তরটা লিখে রাখুন প্রশ্নের পাশে বা নিচে।

২)জব সল্যুশন সলভ করতে গেলে দেখবেন একই প্রশ্ন বিভিন্ন প্রশ্নে এসেছে তখন যে প্রশ্নটা আগে আপনি লিখেছেন পূনরায় তা লিখার দরকার নেই।

৩)ভাবছেন এত বড় বইয়ের সব প্রশ্ন লিখা কি সম্ভব!! ছোটবেলায় খাবার কথা মনে আছে?না খেতে চাইলে মা মাঝে মাঝে প্লেটের সব খাবার ছোট ছোট করে ভাগ করে দিত।প্রথমে একপ্লেট খাবার দেখে ভয় পেয়ে গেলেও পরে ঠিকই সব খাবার শেষ হয়ে যেত।সেরকম ভাগ করে নেন।টার্গেট করুন অত পেজ শেষ করব আজ তারপর ততগুলো।দেখবেন সহজ হয়ে গেছে।

৪)সর্বোচ্চ কতটি প্রশ্ন আছে?

আপনাদের একটা বিষয় না বললেই নয় ২০১৪ এর এডিশনটা আমি শেষ করেছিলাম।

বাংলা ১২০৮,ইংরেজি১০৯৭, সাধারণ জ্ঞান ১৭৮০টি র মত একলাইনে উত্তরসহ প্রশ্ন লিখেছিলাম রিপিট হওয়া প্রশ্ন বাদ দিয়ে।

৫)আর হ্যা নন-ক্যাডার অংশে সব পড়ার দরকার নেই।শুধু পিএসসির প্রশ্নগুলো সলভ করবেন।পিএসসির প্রশ্ন চিনবেন যেভাবে তা হলো ১০০ টি mcq থাকবে।খাতার দৈর্ঘ কমাতে চাইলে প্রতি পাতায় মাঝ বরাবর স্কেল টেনে ২ ভাগ করে নিতে পারেন।

ধন্যবাদ।

এবার একটা গল্প বলি,

এক বিখ্যাত চকোলেট কোম্পানির মালিক বিমানে ভ্রমণ করছেন।সেই বিমানের এক বিমানবালা তাকে দেখে একটা প্রশ্ন করার অনুমতি চাইলেন।অনুমতি পেয়ে বিমানবালা বললেন “স্যার আপনার কোম্পানির চকোলেট তো বাজারে একচেটিয়া তারপরও আপনি টিভিতে এখনও কেন একই বিজ্ঞাপন প্রতিদিন প্রচার করছেন!!!

জবাবে লোকটি হেসে বললেন “তোমার বিমান তো আকাশে উড়ছেই, তাহলে ইঞ্জিন চালু রেখেছ কেন?”

যারা মনে করেন বা বলে থাকেন জবসল্যুশনের দিন শেষ তাদের প্রস্তুতি খুব ভাল।তাদের জন্যই এই গল্প।প্রস্তুতি ভাল যত হবে তত আপনি এই বইটা দ্রুত শেষ করবেন তবে ছেড়ে দেওয়া অনুচিত।

ধন্যবাদ।

About Nazmul Hasan

Hi! I'm Nazmul Hasan. I'm Student of Under National University of Govt. B. L. College,Khulna, Department of Political Science....

Check Also

National university admission cancel process

National University admission cancel process and online application system. National University admission cancel process is …

সিদ্ধান্ত পরিবর্তন ! ঈদ বুধবার পালিত হবে

অনেক জল্পনা-কল্পনার মধ্য দিয়ে আজ সন্ধ্যায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি একটি বৈঠকে বসেছিল। যে ঈদ …

বাংলাদেশের প্রথম পর্যটন ভিত্তিক অগমেন্টেড রিয়েলিটি অ্যাপ “ব্রাহ্মণবাড়িয়া এআর”

Apply Online Here ফেসবুক ভিত্তিক সামাজিক সংগঠন ‘আমরাই ব্রাহ্মণবাড়িয়া’ বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো দর্শনীয় স্থান নিয়ে …

জবিসাসের নতুন কমিটিকে ঢাকসাসের অভিনন্দন

Apply Online Here জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির (জবিসাস) নবনির্বাচিত কমিটিকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছে ঢাকা …

চাঁদনী হত্যার বিচার দাবি

চাঁদনী সহ দেশের সকল নারী ও শিশু ধর্ষণ এবং হত্যাকাণ্ডের দ্রুত বিচার বাস্তবায়ন করার দাবি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!