পছন্দের এলাকায় পার্টটাইম/ফুলটাইম চাকরি খুঁজে পেতে এই অ্যাপটি ইন্সটল করেএখনই আবেদন করুন

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনার্স ৪র্থ বর্ষের ফল নিয়ে গেটে তালা দিয়ে বিক্ষোভ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রবেশপথে তালা দিয়ে বিক্ষোভ করছে একদল শিক্ষার্থী

 

 

 

বাংলাদেশের গাজীপুরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রবেশপথে তালা দিয়ে বিক্ষোভ করছে একদল ২০১৯ সালের অনার্স ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থীরা, যার জের ধরে ১৮ আগস্ট সকাল থেকেই অবরুদ্ধে হয়ে ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তা কর্মচারীরা। [ নিউজঃ BBC]

আরও পড়ুনঃ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৯ সালের অনার্স ৪র্থ বর্ষের এক বিষয়ে গণফেল…

বিক্ষোভরত শিক্ষার্থীরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন কলেজের ২০১৯ সালের অনার্স ২০১৫-১৬ শিক্ষাবর্ষের। তাদের অভিযোগ তাদের অনার্স ফাইনাল পরীক্ষার যে ফল প্রকাশিত হয়েছে তাতে বড় ধরনের গরমিল হয়েছে।

 

অনার্স পরীক্ষার ফলাফল  ২০ জুলাই প্রকাশ করেছিলো জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ, যাতে পাশের হার ৭২ শতাংশ।

ফলাফল দেখার লিংকঃ www.nu.ac.bd/results/

 

 

তবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক মশিউর রহমান বিবিসি বাংলাকে বলেছেন এ বিক্ষোভ অযৌক্তিক, কারণ পরীক্ষার খাতা দেখা বা নম্বর দেয়ার ক্ষেত্রে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের কোন ভূমিকা নেই।

“খাতা দেখেন শিক্ষকরা। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় শুধুমাত্র সেই নাম্বার নিয়ে ফল প্রকাশ করে। এরপরেও কেউ আবেদন করলে তার খাতা পুন:নিরীক্ষণ অর্থাৎ শিক্ষক যে নাম্বার দিয়েছে সেটা ঠিক মতো টেবুলেশন শীটে এসেছে কি-না তা চেক করা যেতেই পারে,” বিবিসি বাংলাকে বলছিলেন তিনি।

 

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতাধীন কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা গ্রহণের ব্যবস্থা করলেও পরীক্ষার খাতা দেখে নম্বর দিয়ে থাকেন কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরাই।

তবে বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীরা বলছেন তারা মনে করেন তাদের অনার্স ফাইনাল ইয়ারের রেজাল্টে কোন কোন বিষয়ে বেশি করে ফেল দেখানো হয়েছে যা অস্বাভাবিক। এ কারণেই এটি পর্যালোচনা করে প্রয়োজনে নতুন করে পরীক্ষা গ্রহণ করার সুযোগ আছে বলে মনে করেন তারা।

যদিও উপাচার্য বলছেন, “অল্প কিছু সংখ্যক শিক্ষার্থী ফেল করেছে। তাদের পাশ করানোর জন্য পরীক্ষার আয়োজনের কোন নিয়ম বা সুযোগ বিশ্ববিদ্যালয়ের নেই। বরং তাদের উচিত ভালো করে প্রস্তুতি নিয়ে ওই বিষয়ে আবারো পরীক্ষা দেয়া”।

 

“বিশ্ববিদ্যালয়ের গেট বা দপ্তর আটকিয়ে তো পাশ করা যাবে না। খাতায় না থাকলে বিশ্ববিদ্যালয় কাউকে পাশ করাতে পারে না। এখানে শিক্ষকের দেয়া নাম্বারই মূল্যায়নের একমাত্র মাপকাঠি। তারপরেও কারও আপত্তি থাকলে খাতা থেকে নম্বর ঠিক মতো টেবুলেশন শীটে এসেছে কি-না বা সেখানে কোন ভুল হয়েছে কি-না সেটি তারা আবেদন করে দেখতে পারে। কিন্তু আমরা কাউকে পাশ করিয়ে দিতে পারবো না,” বলছিলেন তিনি।

কার্টেসিঃ বিবিসি বাংলা

 

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের খাতা পুণঃনিরীক্ষনের পদ্ধতিঃ NU Board Challenge 2021 – Honours 4th year Rescrutiny / Board Challenge 2021

 

About Nazmul Hasan

Hi! I'm Nazmul Hasan. I'm Student of Under National University of Govt. B. L. College,Khulna, Department of Political Science....

Check Also

অনার্স ৪র্থ বর্ষের সিজিপিএ সমস্যা ও সমাধান

অনার্স এবং ডিগ্রীর মধ্যে কিছু পার্থক্য

অনার্স এবং ডিগ্রীর মধ্যে কিছু পার্থক্য। অনার্স হচ্ছে স্নাতক সম্মান আর ডিগ্রি হচ্ছে শুধু স্নাতক …

অনার্স ৪র্থ বর্ষের সিজিপিএ সমস্যা ও সমাধান

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা প্রতারণা থেকে সাবধান

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন কোর্সে ফলাফল প্রকাশের পরে একটি প্রতারক চক্র সক্রিয় হয়ে ওঠে। তখন তারা …

ভর্তি বাতিলের জন্য কলেজ ফরোয়ার্ডিং লেটারের নমুনা - Pdf ফাইল

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ট্রান্সফার ২০২২

আজ ২১ এপ্রিল অনার্স ১ম বর্ষের ফলাফল প্রকাশের পর শুরু হয়ে গেল টিসির আবেদন। আবেদন …

অনার্স ৪র্থ বর্ষের সিজিপিএ সমস্যা ও সমাধান

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে মেধাবৃত্তি ও সাধারণ বৃত্তি দেবে সরকার

২০২১-২২ অর্থবছরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে অনার্স(২০১৫-১৬) পাসকৃত ৩৯৩ জনকে এবং ডিগ্রি(২০১৬-১৭) পাসকৃত ৩০৯ …

অনার্স ৪র্থ বর্ষের সিজিপিএ সমস্যা ও সমাধান

F/D/C বিষয় ফরম ফিলাপ করে পরীক্ষা না দিলে কী হবে?

F/D/C বিষয়ে ফারমপূরণ করেছি কিন্তু পরীক্ষা দেই নাই / দিবো না। সমস্যা হবে? F/D/C বিষয় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !! Admin