Breaking News
Home / Career Discussion / Dhaka university তে মাস্টার্স করার স্বপ্ন যাদের রয়েছে

Dhaka university তে মাস্টার্স করার স্বপ্ন যাদের রয়েছে

 

Dhaka university তে মাস্টার্স করার স্বপ্ন অনেকের অাছে তাই না? তাহলে পোস্ট টা সম্পূর্ন মনোযোগ সহকারে পড়বেন।

#DU masters :

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্স করার সুযোগ সকলের জন্য উন্মুক্ত। জেনে নিন বিস্তারিতভাবে। উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার পর সবার স্বপ্নের বিদ্যাপীঠ প্রাচ্যর অক্সফোর্ড খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। কিন্তু লক্ষ লক্ষ ছাত্রছাত্রীর মধ্য থেকে মাত্র কয়েক হাজার মেধাবী ছাত্রছাত্রী এখানে ভর্তির সুযোগ পান। বাকিদের স্নাতক পর্যায়ে দেশের বিভিন্ন সরকারি অথবা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে হয়। স্নাতক ডিগ্রি অর্জনের পরেও কিন্তু ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার সুযোগ আছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যেকোনো শিক্ষার্থীর জন্যই উচ্চশিক্ষার স্বপ্নের গন্তব্য। অন্য কোনো বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক পড়া শেষ করেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্স পর্যায়ে অনেকগুলো বিষয়ে পড়ার সুযোগ আছে। শুধুমাত্র পেশাগত জীবনেই এই ডিগ্রি কাজে লাগছে তা নয় বরং এসব ডিগ্রি নিয়ে শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশের উন্নয়নেও গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারছেন। জেনে নিন এ বিষয়ে বিস্তারিত।

প্রাচ্যর অক্সফোর্ড বলে খ্যাত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (dhaka university) এই আকর্ষণীও ডিগ্রি অর্জনের সুযোগ সবার জন্য উন্মুক্ত। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ও অন্যান্য সরকারি/বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভিন্ন বিভাগে এমবিএ(MBA), এমএ(MA), এমএসএস(MSS), এমএসসি(MSc) ডিগ্রির জন্য স্নাতকোত্তর পর্যায়ে ভর্তি হওয়ার সুযোগ উন্মুক্ত। এক বছর অথবা দুই বছর মেয়াদি বিভিন্ন বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মাস্টার্স কোর্সে (dhaka university masters admission) ভর্তির সুযোগ আছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে সাধারণ অথবা সান্ধ্যকালীন মাস্টার্স কোর্সে ভর্তির সুযোগ আছে।

যে সকল বিষয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি সুযোগ আছে :

• মাস্টার্স অব ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট

• মাস্টার্স অব প্রোফেশনাল অ্যাকাউন্টিং

• সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের ইভিনিং মাস্টার্স প্রোগ্রামের এক বছর মেয়াদি এমএসএস কোর্স

• মাস্টার্স ইন ক্রিমিনোলজি অ্যান্ড ক্রিমিনাল জাস্টিস

• ইভিনিং এমএড (এক বছর অথবা দুই বছর)

• এমএস ইন ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট

• তথ্যবিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনায় ইভিনিং এমএ(মেয়াদ দুই বছর)

• এক্সিকিউটিভ এমবিএ

• মাস্টার্স ইন ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ টিচিং

• মাস্টার্স ইন গভর্ন্যান্স স্টাডিজ

• এমএস ইন ওশানোগ্রাফি

• এমএস ইন রিনিউয়েবল এনার্জি

• মাস্টার্স অব পপুলেশন সায়েন্স(মেয়াদ দুই বছর)

• মাস্টার্স ইন জাপানীস স্টাডিস

• মাস্টার্স অব সোশ্যাল সায়েন্স ইন টেলিভিশন অ্যান্ড ফিল্ম স্টাডিজ

• ইভিনিং ও সাধারণ এমবিএ

• মাস্টার্স ইন ইনফরমেশন টেকনোলজি

• সায়েন্স ইন সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং

• এমএসএস ইন স্পিচ অ্যান্ড ল্যাঙ্গুয়েজ থেরাপি(মেয়াদ দুই বছর)

যত বিষয়ে মাস্টার্সের পড়াশোনা :

* পপুলেশন সায়েন্স বিভাগে দুই বছর মেয়াদি মাস্টার্স অব পপুলেশন সায়েন্স প্রোগ্রামে ভর্তি হওয়ার সুযোগ আছে।

*তথ্যবিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা বিভাগে যাঁরা পড়তে চান, দুই বছর মেয়াদি ইভিনিং এমএ কোর্সে ভর্তি হতে পারেন।

-তবে এই বিভাগে আবেদনের জন্য মাধ্যমিক ও স্নাতকের প্রাপ্ত সিজিপিএর যোগফল ন্যূনতম ৭ থাকতে হয়।

*শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইআর) এক বছর/দুই বছর মেয়াদি এমএড (সান্ধ্য) কার্যক্রমে ভর্তির সুযোগ আছে।

*বিএড (সম্মান)/ বিএড বা সমতুল্য ডিগ্রিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারেন।

*সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের ইভিনিং মাস্টার্স প্রোগ্রামের এক বছর মেয়াদি এমএসএস কোর্স

*ইনস্টিটিউট অব ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড ভালনারেবিলিটি স্টাডিজের মাস্টার্স অব ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট

*রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধীনে মাস্টার্স ইন গভর্ন্যান্স স্টাডিজ (এমজিএস) প্রোগ্রামে শিক্ষার্থীরা ভর্তি হওয়ার সুযোগ পাবেন।

*সমাজবিজ্ঞান বিভাগে মাস্টার্স প্রোগ্রাম ইন ক্রিমিনোলজি অ্যান্ড ক্রিমিনাল জাস্টিসেও পড়াশোনার সুযোগ আছে।

এ ছাড়া ভাষা নিয়ে যাঁদের আগ্রহ আছে, আধুনিক ভাষা ইনস্টিটিউটে এমএ ইন ইংলিশ ল্যাঙ্গুয়েজ টিচিং ডিগ্রি নিতে পারেন।

*টেলিভিশন ও ফিল্ম স্টাডিজ বিভাগে মাস্টার্স অব সোশ্যাল সায়েন্স ইন টেলিভিশন অ্যান্ড ফিল্ম স্টাডিজে ৩০ জন শিক্ষার্থী ভর্তির সুযোগ পান।

এই বিভাগে চার সেমিস্টার শেষে তিন মাসের ইন্টার্নশিপে অংশ নিতে হয়।

*কমিউনিকেশন ডিসঅর্ডার বিভাগে দুই বছরের প্রোফেশনাল এমএসএস ইন স্পিচ অ্যান্ড ল্যাঙ্গুয়েজ থেরাপি (পিএমএসএলটি) ডিগ্রিতে ভর্তি হওয়া যায়।

*ব্যবসায় প্রশাসন ইনস্টিটিউট (আইবিএ) ও ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদে দুই বছর মেয়াদি ইভিনিং ও সাধারণ এমবিএ করা যায়।

আইবিএতে পেশাজীবীদের জন্য এক বছরের এক্সিকিউটিভ এমবিএ করার সুযোগ আছে।

*অ্যাকাউন্টিং ও ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগে দুই বছর  মেয়াদি মাস্টার্স অব প্রোফেশনাল অ্যাকাউন্টিং (এমপিএ)কোর্সে ভর্তি হওয়া যায়।

*পদার্থবিজ্ঞান, ফলিতপদার্থ, ইলেকট্রনিকস ও কমিউনিকেশন প্রকৌশল বা রসায়নে চার বছরের ব্যাচেলর ডিগ্রি ও এক বছরের মাস্টার্স ডিগ্রি নিয়ে ইনস্টিটিউট অব এনার্জির এমএস ইন রিনিউয়েবল এনার্জি টেকনোলজিতে ৩৮ ক্রেডিটের স্নাতকোত্তরে দেড় বছর মেয়াদি কোর্সে ভর্তির সুযোগ আছে।

*ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে ভর্তি হতে পারেন এমএস ইন ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট কোর্সে।

*ইনস্টিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজিতে (আইআইটি) এক বছর মেয়াদি মাস্টার্স ইন ইনফরমেশন টেকনোলজি (এমআইটি) ডিগ্রি নিতে পারেন।

এই কোর্সে ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের কম্পিউটার সায়েন্সে স্নাতক ডিগ্রি থাকতে হবে।

একই ইনস্টিটিউট থেকে মাস্টার্স অব সায়েন্স ইন সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে তিন সেমিস্টারের মাস্টার্স কোর্সে ভর্তির সুযোগ আছে।

*বায়োমেডিক্যাল ফিজিকস অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগে মেডিকেল ফিজিকস ও বায়োমেডিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ক্ষেত্রে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেওয়া যায়।

এখানে ভর্তি পরীক্ষায় পদার্থ, ইলেকট্রনিকস, কম্পিউটার, গণিত ও অ্যানালিটিক্যাল দক্ষতার ওপরে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হয়।

*সমুদ্রবিজ্ঞান বিভাগ থেকে এমএস ইন ওশানোগ্রাফি ডিগ্রি নিয়েও পড়া যায়।

১৮ মাস মেয়াদি এই বিষয়ে পড়াশোনার জন্য ভূগোল, ভূতত্ত্ব, পদার্থবিজ্ঞান, গণিত বা উদ্ভিদবিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রীপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীরা আবেদন করতে পারেন।

বিস্তারিত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ওয়েবসাইট ও বিভিন্ন বিভাগ বা ইনস্টিটিউটের ওয়েবসাইট থেকে ভর্তির যোগ্যতা, নিয়মাবলি সম্পর্কে ধারণা পাওয়া যাবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: du.ac.bd

আইবিএঃ http://iba-du.edu/

বায়োমেডিক্যাল ফিজিকস ও টেকনোলজি: bmpt.du.ac.bd

টেলিভিশন ও ফিল্ম স্টাডিজ: tfs.du.ac.bd

আইআইটি: iit.du.ac.bd

পপুলেশন সায়েন্স: dpsdu.edu.bd

ওশানোগ্রাফি: oceanographydu.com

জানতে চাই আইন নিয়ে পড়াশোনা :

মাস্টার্স কোর্সে ভর্তির জন্য প্রাথমিকভাবে যে যোগ্যতা থাকা আবশ্যক :

দেশি অথবা বিদেশি সরকার স্বীকৃত যেকোনো বিশ্ববিদ্যালয় হতে স্নাতক পর্যায়ে দ্বিতীয় শ্রেণি অথবা ন্যূনতম সিজিপিএ ২.৫০ থাকতে হবে ভর্তির প্রাথমিক যোগ্যতা হিসাবে। তবে বিভাগভেদে সিজিপিএতে কমবেশি হতে পারে। তথ্যবিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা বিভাগে আবেদনের জন্য মাধ্যমিক ও স্নাতক পর্যায়ের প্রাপ্ত সিজিপিএর যোগফল ন্যূনতম ৭ হতে হবে। বিশেষায়িত অথবা কারিগরি বিভাগের পরীক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট বিভাগের স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি থাকতে হবে।

মাস্টার্সের পড়াশোনার খরচ :

বিভিন্ন বিভাগে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে পড়াশোনার খরচ বিভিন্ন। কোর্স এবং বিভাগ অনুসারে পড়াশোনার খরচ ৫০ হাজার টাকা থেকে শুরু করে আড়াই লাখ টাকা পর্যন্ত হতে পারে।

স্নাতকোত্তর পর্যায়ে ভর্তি প্রক্রিয়া :

প্রথমত আপনাকে স্নাতকোত্তর পর্যায়ে ভর্তির জন্য ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হবে। বছরে দুইবার অথবা তিনবার, ডিসেম্বর এবং জুন মাসে জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় ভর্তি বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়। ভর্তি হতে আগ্রহী শিক্ষার্থীদের নির্দিষ্ট বিভাগ বা ব্যাংক এর নির্দিষ্ট শাখা থেকে নির্দিষ্ট ফি জমা করে ভর্তি ফরম সংগ্রহ করতে হবে। প্রতি সেশনে বিভিন্ন বিভাগে সাধারণত ৫০ থেকে ১০০ জন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়। ভর্তি পরীক্ষায় সাধারণত নির্ধারিত বিষয়ের প্রশ্নের পাশাপাশি ইংরেজি, বাংলা ও সাধারণ জ্ঞানের প্রশ্ন থাকে। ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হলে আবার মৌখিক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে হয়। লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার পর নির্বাচিত শিক্ষার্থীদের তালিকা চূড়ান্তভাবে প্রকাশ করা হয়।

বিস্তারিত জানার জন্য ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট ও বিভিন্ন বিভাগ বা ইনস্টিটিউটের ওয়েবসাইট থেকে দেখে নিতে পারেন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটঃ univdhaka.edu

About Jahidul Islam

jahidul Islam palash BBA complete Comilla victory college.

2 comments

  1. MBA করতে কত খরচ হতে পারে?

  2. I do not even know how I ended up here, but I thought this
    post was great. I don’t know who you are but definitely you are going to a famous blogger if you are not already 😉
    Cheers!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *