Breaking News
Home / Others / নিজ শহরে খেলতে না পারা দুর্ভাগ্যজনক:তামিম

নিজ শহরে খেলতে না পারা দুর্ভাগ্যজনক:তামিম

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই থেকে দেশে ফিরেছেন জাতীয় দলের উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল খান। তবে যেহেতু রিহ্যাবে আছেন তাই জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে চট্টগ্রামে যাবেন না। তবে শেষ ম্যাচ দেখতে নিজ শহরে যেতেও পারেন । তার শহরের সাগরিকায় ওয়ানডে হচ্ছে কিন্তু খেলতে পারবেন না। এটা ভাবতেও খারাপ লাগছে তার নিজের। এটাকে দুর্ভাগ্যজনক ভাবছেন তামিম।

নিজ শহরে তামিম নেই এবার, প্রায় এক যুগ পরে বন্দর নগরীর ওয়ানডেতে নেই চট্টগ্রামের আর কেউ। সেই ১৯৮৮ সালে মিনহাজুল আবেদিন নান্নু, জাহিদ রাজ্জাক মাসুম ও আকরাম খানদের হাত ধরে যে যাত্রা শুরু হয়েছিল চট্টলার, এবার তামিম ইনজুরিতে ছিটকে পড়ায় জাতীয় দল ওয়ানডেতে হলো চট্টগ্রাম শূন্য। দেশের ক্রিকেটের প্রায় এক ডজন নামী ও তারকা ব্যাটসম্যান যে শহরে জন্ম নিয়েছেন, সেই শহর থেকে এখন তামিম ছাড়া আর কেউই নেই দলে। ভাবা যায়! একসময় যে চট্টগ্রামকে ভাবা হতো ব্যাটসম্যানদের ডিপো , সেই চট্টগ্রাম এখন শুধুই তামিম নির্ভর। দশ বছরের বেশি সময় ধরে আর একজন ব্যাটসম্যানও উঠে আসেননি এ শহর থেকে। সেটাকে খুবই হতাশার ও দুঃখজনক অভিহিত করে তামিম বলেন, আর কোনো ক্রিকেটার বা ব্যাটসম্যান উঠে না আসাটা হতাশার।

ক্রিকেটের এই নতুন প্রতিভার উন্মেষ না ঘটার কারণ খুঁজছেন তামিম ইকবালও। তার ধারণা স্থানীয় সংগঠকরা ক্রিকেটীয় কর্মকাণ্ড সূচারুরূপে পরিচালনা ও ব্যবস্থাপনা করতে না পারায় জাতীয় ক্রিকেটারের সংখ্যা কমতে কমতে শূন্যতে এসে নেমেছে। তামিম বলেন,এক্ষেত্রে বিসিবিকে দোষ দিয়ে লাভ নেই। বোর্ড বয়সভিত্তিক ক্রিকেট পরিচালনা করে যাচ্ছে। নিয়মিতই অনূর্ধ্ব-১৩, ১৫, ১৭ ও ১৯ এর কার্যক্রম চালাচ্ছে। কিন্তু যাদের আসল কাজ করা উচিৎ তারা কি সে কাজটা করছেন? আমি শুধু এই প্রশ্নটাই তুলতে চাইবো। বোর্ড বিসিএল, এনসিএল আয়োজন করছে। এর বাইরে কি করতে পারে তারা? স্থানীয় লীগ আয়োজন এবং বন্দর নগরীতে ক্রিকেটার গড়ে তোলার দায়িত্ব তো স্থানীয় সংগঠকদের। তারা কি তাদের কাজ গুলো করছেন? – প্রশ্ন তামিমের। সেই সাথে তামিম আরও যোগ করেন, তবুও রক্ষা মেয়র আ জ ম নাসির বর্তমানে কয়েক বছর ধরে চট্টগ্রামের লিগটা প্রায় নিজ উদ্যোগেই চালু রেখেছেন। কিন্তু চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থা (সিজেকেএস) কি করছে?

চট্টগ্রাম থেকে এখন আর ক্রিকেটার না উঠে আসায় চিন্তিত বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নুও। তবে তিনি আশার কথা শুনিয়েছেন। বিসিবির তত্ত্বাবধানে চট্টগ্রাম থেকে ক্রিকেটার উঠিয়ে আনার কাজ শুরু হবে বলে জানান তিনি।

About Sydur Rahman Tanvir

Check Also

আগুনে স্বপ্ন পুড়ে ছাই ঢাবি শিক্ষার্থীর,বাবাকে খুঁজছে জমজ সন্তান

হাফেজ মো. কাওসার আহমেদ। জীবনের শিক্ষার হাতেখড়ি মাদরাসায়। মাদরাসা লাইনে পড়াশোনা করে কোরআনের হাফেজ হয়েই …

সড়ক দুর্ঘটনায় ঢাবি ও ঢাকা কলেজের ২ শিক্ষার্থী নিহত

মোটরসাইকেলযোগে কুয়াকাটা ভ্রমণে যাওয়ার পথে বরিশালের উজিরপুরে যাত্রীবাহী চাসের চাপায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও ঢাকা কলেজের  …

চৌদ্দগ্রামে তিন বসতঘর পুড়ে ছাই

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় পুড়ে গেছে তিনটি বসতঘর। শুক্রবার রাতে উপজেলার গুণবতী ইউনিয়নের চাঁপাচৌ গ্রামের …

নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জে বিশ্বসেরা শাবিপ্রবি

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মহাকাশ সংস্থা নাসার উদ্যোগে আয়োজিত ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অংশ …

বোরকা পরে স্ত্রীর পরীক্ষা দিতে গিয়ে ধরা পড়লো স্বামী

সাত বছর প্রেমের পর গাঁটছড়া বাঁধেন মাহমুদুল হাসান (২৮) ও জুলেখা খাতুন (২৫)। এরপর বেশ …