অনার্স ১ম বর্ষের ৪ লাখ শিক্ষার্থীকে ওরিয়েন্টেশন প্রদানের সিদ্ধান্ত

২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) ১ম বর্ষে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীদের ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম ২১ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের গাজীপুরস্থ ক্যাম্পাসে বিকাল ৩টায় উপাচার্যের কনফারেন্স রুম থেকে ভার্চুয়াল প্লাটফর্মে এই প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অনার্স ভর্তির ওরিয়েন্টেশন ক্লাশ সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি

 

২১ অক্টোবর আয়োজিত ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এমপি, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন মাননীয় শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী এমপি, অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান। শিক্ষামন্ত্রী কর্তৃক ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম উদ্বোধন ঘোষণা করার পরপরই অধিভুক্ত কলেজসমূহের অধ্যক্ষবৃন্দকে সংশ্লিষ্ট শিক্ষক ও প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থীদেরকে নিয়ে ওরিয়েন্টেশন কর্মসূচি পালনের জন্য বলা হয়েছে।

খুব সহজে নিজ শহরে চাকরি খুঁজতে কর্ম এপস ডাউনলোড করুন!

কর্ম এপস ডাউনলোড লিংক

আরও পড়ুনঃ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়রের ক্লাশ শুরু ২১ অক্টোবর সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি।

 

অনার্স ১ম বর্ষের দেশব্যাপী ৪ লাখ শিক্ষার্থীকে ওরিয়েন্টেশন প্রদান করবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।অনার্স ১ম বর্ষে দেশব্যাপী ভর্তি হওয়া ৪ লাখ নবীন শিক্ষার্থীকে ওরিয়েন্টেশন প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। আজ রবিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের ৯৩তম সভায় এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান।

অনার্স ১ম বর্ষের ৪ লাখ শিক্ষার্থীকে ওরিয়েন্টেশন প্রদানের সিদ্ধান্ত সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তি

নিজ শহরে ফ্রিতে চাকুরি খুঁজতে গুগল পরিচালিত কর্ম এপ ইনস্টল করুন!

 

সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রামে অনার্স ১ম বর্ষে সদ্য ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার প্রদান, কোভিডকালিন স্বাস্থ্যঝুঁকি সম্পর্কে ধারণা দেয়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনাসহ বিভিন্ন বিষয় দিকনির্দেশনা প্রদান করবে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক নির্ধারিত তারিখে স্ব স্ব কলেজে এই ওরিয়েন্টেশন প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে। অনলাইনে শিক্ষাকার্যক্রম অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্তসহ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীদের টিকার আওতায় আনার বিষয়ে গুরুত্বারোপ করা হয়। এছাড়া কোভিডের কারণে যেসব শিক্ষার্থীর মনোবল ভেঙে পড়েছে, তাদের মনোবল ধরে রেখে শিক্ষার্থীদের মানসিক স্বাস্থ্যের ক্ষতি কাটিয়ে উঠার জন্য নিয়মিত কাউন্সিলিং এর ব্যবস্থার পাশাপাশি সহশিক্ষা কার্যক্রম চালু রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

 

সভায় বিভিন্ন পরীক্ষার প্রকাশিত ফলাফলের অনুমোদন দেয়া হয়। বিশেষ করে ২০১৯ সালের অনার্স ৪র্থ বর্ষ পরীক্ষায় যেসব শিক্ষার্থীরা অকৃতকার্য হয়েছে কোভিড-১৯ বিবেচনায় আগামী নভেম্বর মাসে তাদের বিশেষ পরীক্ষা গ্রহণের সিদ্ধান্ত হয়েছে। ৩ জনকে এমফিল এবং ২ জনকে পিএইচডি ডিগ্রি প্রদান করা হয়। এছাড়া বঙ্গবন্ধু মুক্তিযুদ্ধ বাংলাদেশ গবেষণা ইনস্টিটিউটের অ্যাকাডেমিক কমিটিতে ২জন অধ্যাপককে সদস্য হিসেবে মনোনয়ন দেয়া হয়।

 

সভায় সমাপনী বক্তব্যে উপাচার্য মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও জ্ঞানভিত্তিক সমাজ সৃষ্টির লক্ষ্যে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজের শিক্ষার্থীদের দেশপ্রেমিক দক্ষ মানবসম্পদ তৈরির জন্য সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান। অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সদস্যবৃন্দ নবনিযুক্ত উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. মশিউর রহমান এবং ট্রেজারার প্রফেসর আবদুস সালাম হাওলাদারকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানান। তারা আশাবাদ ব্যক্ত করেন- নতুন উপাচার্যের গতিশীল নেতৃত্বে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে সক্ষম হবে।

 

অ্যাকাডেমিক কাউন্সিলের সভায় বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশনের সদস্য অধ্যাপক মো. হামিদুল হক, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগে শিক্ষক অধ্যাপক ড. আল মাসুদ হাসানউজ্জামান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি বিভাগের অধ্যাপক ড. সীতেশ চন্দ্র বাছার, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক প্রফেসর ড. সৈয়দ মো. গোলাম ফারুক, চট্টগ্রামের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক প্রদীপ চক্রবর্তী, ময়মনসিংহ মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. গাজী হাসান কামাল, বাংলা একাডেমির পরিচালক ড. জালাল আহমেদ, রাজশাহী কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. আবদুল খালেক, সরকারি আজিজুল হক কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. শাহজাহান আলী, লালমাটিয়া কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো. রফিকুল ইসলাম, কুমিল্লা আইন কলেজের অধ্যক্ষ ড. মুনজুর কাদের, বান্দরবান সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনবৃন্দ, রেজিস্ট্রার, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকসহ ৩৩ জন সম্মানিত সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

 

মোঃ ফয়জুল করিম পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত), জনসংযোগ দপ্তর, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়।

About Nazmul Hasan

Hi! I'm Nazmul Hasan. I'm Student of Under National University of Govt. B. L. College,Khulna, Department of Political Science....

Check Also

যাদের NID নাই জন্মসনদের মাধ্যমে ভ্যাক্সিন নিবন্ধনের নির্দেশ

জন্মনিবন্ধন সনদের মাধ্যমে যারা ইতিমধ্যে নিবন্ধন করেছেন তাদের আপডেট। অফিসিয়াল আপডেট অনুযায়ী, ইউজিসি কর্তৃক ইতিমধ্যে …

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজের সাথে ‘বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ’ ব্যবহার না করতে নির্দেশ

অধিভুক্ত সকল কলেজ/শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান/ইনস্টিটিউট ।জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজ/শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান/ইনস্টিটিউটসমূহের নামের সাথে ‘বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ শব্দের ব্যবহার থেকে বিরত …

অনার্স ও প্রফেশনাল কোর্সের মধ্যে পার্থক্য

“স্নাতক (সম্মান)” বনাম “স্নাতক (সম্মান) প্রফেশনাল” (HONOURS vs PROFESSIONAL HONOURS) দুটি কোর্সের বিপরীতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের …

103.113.200.28/student covidinfo/

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত সকল কলেজ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত সকল শিক্ষার্থী যাদের ১৮ বা ১৮ বছরের …

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের ভ্যাক্সিন নিবন্ধনের নির্দেশ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল শিক্ষার্থীকে ভ্যাক্সিনের জন্য নিবন্ধনের নির্দেশ। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সকল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!