পছন্দের এলাকায় পার্টটাইম/ফুলটাইম চাকরি খুঁজে পেতে এই অ্যাপটি ইন্সটল করেএখনই আবেদন করুন

NU Convocation 2020 – convocation.nu.edu.bd

প্রতিষ্ঠার ২৭ বছর পর জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠান হবে চলতি বছরের শেষের দিকে। রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মোঃ আবদুল হামিদের সভাপতিত্বে এ সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। 

আজ শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গাজীপুরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল ক্যাম্পাসে বার্ষিক বিশেষ সিনেট অধিবেশনে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই সিনেট অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ।

সমাবর্তন অনুষ্ঠানের দিনক্ষণ এবং ভেন্যু এখনও নির্ধারণ করা হয়নি। তবে আগামী অক্টোবর মাসকে টার্গেট করে কাজ শুরু করছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ শিগগিরই রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মোঃ আবদুল হামিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবে।

এজন্য জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বলছে, চ্যান্সেলর মোঃ আবদুল হামিদ যখনই সময় দিবেন, তখনই দ্বিতীয় সমাবর্তনের দিনক্ষণ নির্ধারণ করা হবে। সেক্ষেত্রে আগামী অক্টোবর থেকে ডিসেম্বরের যেকোন দিন দ্বিতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ, তথ্য ও পরামর্শ দফতরের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) মোঃ ফয়জুল করিম দ্যা ডেইলি ক্যম্পাসকে বলেন, চলতি বছরের শেষের দিকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্বিতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর মোঃ আবদুল হামিদের সভাপতিত্বে এ সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। তাই উনার সাক্ষাতের পরে দিনক্ষণ ঠিক করা হবে।

তিনি বলেন, চ্যান্সেলর যখন আমাদের সময় দিবেন তখনই আমরা সমাবর্তনের দিনক্ষণ ঠিক করবো। উনি যদি অক্টোবরে সময় দেন, তাহলে অক্টোবরে দ্বিতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। আর যদি ডিসেম্বররে সময় দেন, তাহলে ডিসেম্বরে দ্বিতীয় সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে। 

প্রসঙ্গত, প্রতিষ্ঠার ২৪ বছর পর ২০১৭ সালের ১৭ জানুয়ারি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠান হয়েছিল। রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিতব্য এই সমাবর্তনে মোট ৪ হাজার ৯৩২ জন অংশ নেওয়ার জন্য নিবন্ধন করেছিলেন।

২০১৭ সালের ১ম সমাবর্তনে যেসকল পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা আবেদন করেছিলঃ

১৯৯৮ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ডিগ্রী পাস
২০০০ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত অনার্স
২০০০ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত মাস্টার্স ফাইনাল
২০০৭ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত বিবিএ
২০০৩ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত এমবিএ
২০০৭ থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত বিএড অনার্স
২০০৬ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত এমএড
২০০৮ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত সিএসই
২০০৭ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত বিএফএ অনার্স
২০০৯ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত বিএফএ পাস
২০১০ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত ইসিই
২০০৩ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত এলএলবি ফাইনাল
২০০৩ থেকে ২০১০ সাল পর্যন্ত এমএসসি ইন সিএসই

রেজিস্ট্রেশন ফি ছিল ২৫০০ টাকা এবং সনদপত্র ফি ৫০০ টাকা। বিশেষ কোন সিজিপিএ উল্লেখ করা হয়না তাই সমাবর্তনের জন্য সবাই রেজিষ্ট্রেশন করতে পারে।

এ বছররের সমাবর্তন অনুষ্ঠানের সময়, কারা রেজিষ্ট্রেশন করতে পারবে,রেজিষ্ট্রেশন করার পদ্ধতি এ বিষয়ে বিস্তারিত জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় নোটিশ আকারে জানিয়ে দিবে।

About Nazmul Hasan

Hi! I'm Nazmul Hasan. I'm Student of Under National University of Govt. B. L. College,Khulna, Department of Political Science....

Check Also

অনার্স ৪র্থ বর্ষের সিজিপিএ সমস্যা ও সমাধান

অনার্স ৩য় বর্ষ ২০২২ – যারা ৪র্থ বর্ষে প্রমোশন পেলেন তাদের করণীয়

অনার্স ৩য় বর্ষ থেকে যারা ৪র্থ বর্ষে প্রমোশন পেলেন তাদের করণীয় । ৪র্থ বর্ষে F …

অনার্স ৩য় বর্ষ ফলাফল প্রকাশ ও সমস্যা সমাধান ২০২২

অনার্স ৩য় বর্ষ ফলাফল ২০২২ – যাদের খারাপ হয়েছে তাদের করণীয়

অনার্স ৩য় বর্ষের রেজাল্ট প্রকাশের পর গ্রুপে রেজাল্ট পরিবর্তন করে দেওয়া হবে,১০০% কাজ হবে, এই …

অনার্স ৪র্থ বর্ষের সিজিপিএ সমস্যা ও সমাধান

অনার্স ৩য় বর্ষ ফলাফল প্রকাশ ২০২২ – প্রতারকচক্র হতে সাবধান

অনার্স ৩য় বর্ষের রেজাল্ট প্রকাশের পর গ্রুপে রেজাল্ট পরিবর্তন করে দেওয়া হবে,১০০% কাজ হবে, এই …

অনার্স ৪র্থ বর্ষের সিজিপিএ সমস্যা ও সমাধান

অনার্স ৩য় বর্ষ পরীক্ষার ফলাফল ২০২২

২০২০ সালের অনার্স ৩য় বর্ষ(২০১৭-১৮) পরীক্ষার ফলাফল ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়েছে। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইট থেকে …

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত অবস্থায় জানা জরুরি

২য় মেধা তালিকার বিষয় পরিবর্তন ও কোটার মেধা তালিকা ২০২২

২য় মেধা তালিকার বিষয় পরিবর্তন ও কোটার মেধা তালিকা ২০২২। ২০২১-২০২২ শিক্ষাবর্ষে ১ম বর্ষ স্নাতক …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

error: Content is protected !! Admin