Breaking News
Home / Honours Notice / বিশ্লেষণঃ অনার্স ১ম বর্ষের [১৭-১৮] পরিক্ষা জুলাই মাসে নয় আগষ্টে হবে…

বিশ্লেষণঃ অনার্স ১ম বর্ষের [১৭-১৮] পরিক্ষা জুলাই মাসে নয় আগষ্টে হবে…

(১৭-১৮) অনার্স ১ম বর্ষের পরিক্ষা কি তবে জুলাই মাসে হচ্ছে ?

চলুন দেখা যাক এবার ক্যালেন্ডার ও তার বাস্তবায়ন কি বলে।

ক্লাশ শুরু হয় ১৫ অক্টোবর থেকে এবং তা চলে মে এর ১৭ তারিখ পর্যন্ত।

১৮ মে থেকে ২৭ জুন পর্যন্ত চলবে ফর্ম পূরণ।

ক্যালেনডার অনুযায়ী ফর্ম পূরণ জুনে শেষ হতে হবে।

জুলাই এ শুরু হবে পরিক্ষা।যা চলবে ৪৫ দিন।

বিগত বছরে ফিরে দেখা ২০১৭ সাল অর্থাৎ, ২০১৬-১৭ সেশন . .

[ফর্ম পূরণ শেষ হয় জুলাই এর শেষে।রুটিন পাওয়া যায় ২৭ আগস্ট।পরিক্ষার ডেট হয় ৪ অক্টোবর।
মাঝে ১টা গ্যাপ থাকছে।বর্তমানে ক্যালেন্ডার অনুযায়ী এই ধারা স্থাপন করি।]

জুনে ফরম পূরণ শেষ।ধরি ২০ দিনের মধ্যে রুটিন বের হবে আচ্ছা ধরি ১৫ দিনের মধ্যে রুটিন বের হবে।আজ রুটিন হলো আর কাল থেকে পরিক্ষা এমনটা হয়নি।

কম করে হলেও ১৫ থেকে ২০ দিন প্রস্তুতির সময় থাকবেই ইনশাহ আল্লাহ।

রুটিন ও পরিক্ষার আগের গ্যাপ কম করেও ৩০ দিন।এর কম যদি হয় তবে সেটা হবে আশ্চার্য জনক। তাহলে জুলাই অতিক্রম হয়ে গেলো।আগস্টে পা রাখলাম।

যদি জুলাই মাসে রুটিন হয় তবে আগস্টে পরিক্ষা হবে।

রুটিন নির্ভর করে ফরম পূরণের সময় শেষের উপর।ফরম পূরণের ডেট যদি বাড়ানো হয় তবে রুটিন পাওয়ার ডেটটাও পিছিয়ে যাবে সাথে পরিক্ষা।নূন্যতম গ্যাপ !যেটা না দিলেই নয়,সেটা দিয়ে হিসেব কষলেও পরিক্ষা আগস্ট গড়াচ্ছে।আর তাও যদি না হয় যাকে বলে হীতের বীপরিত তাহলে জুলাইয়ের সর্ব শেষাংশে পরিক্ষা হবে।যদি আগস্টের শুরুতে পরিক্ষা হয় তবে পরিক্ষাতে গ্যাপ থাকবে।গ্যাপটা হচ্ছে ইদ উল আযহা এর।আর গ্যাপ থাকবে আগস্টের মধ্যাংশে।

ক্যালেন্ডারে সম্পূর্ণ জুলাই মাস পরিক্ষা হিসেবে চিহ্নিত করা হলেও প্রকৃত পক্ষে বাস্তবায়নটা কঠিন।

ক্যালেন্ডার ফলো করলে জাবিকে জুন মাসের মধ্যেই রুটিন দিতে হবে এবং ১৫ বা ২০ দিনের মধ্যে পরিক্ষা শুরু করতে হবে।আর এত্তহ গুলা স্টুডেন্টের এডমিট কার্ড তৈরি করা আর সীট প্লানিং করা চারটে কথা নহে বাহে।

প্রশ্ন করতে পারেন অংক প্রিপারেশন কোন মাসকে ধরে করবো ?

প্রিপারেশন আপনি আগস্টের শুরুকে ধরে নিবেন।

বাকিটা জুলাইয়ের ১৫ তারিখ বা !যদি ফরম পূরনের ডেট বাড়ানো হয় তার ওপর নির্ভর করে দেখা বা অনুমান করা যাবে।
মাথায় রাখবেন ফরম পূরনের ডেট শেষ হওয়ার পর রুটিন প্রকাশ হওয়া পর্যন্ত ১টা গ্যাপ আর রুটিন প্রকাশের পর থেকে পরিক্ষা শুরুর হওয়া পর্যন্ত ১টা গ্যাপ থাকে।

শুধু গ্যাপ না।মানসিক প্রিপারেশ নিতে পারেন এই টাইপের গ্যাপ থাকবে।যেহেতু জাবির ঘোড়া ছুটেছে তাই বর্তমান গা ছেড়ে বসে থাকলে আর ভালো রেজাল্টের মুখ দেখা লাগবে না। বিশেষ করে যারা জরিমানা দিছে ! ফার্স্ট ক্লাশ না তুলতে পারলে পুরাই লস শুধু গ্যাপ না।
সিফাত আহমেদ

[কপি করলে কার্টেসি দিয়ে বাধিত করবেন]

About Nazmul Hasan

Hi! I'm Nazmul Hasan.I'm Student of Govt. B.L. College,Khulna, Department of Political Science....

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *